” মবিল ও ছাঁই ” খেয়েই টানা পনের বছর ধরে বেঁচে আছে এই বিস্ময় যুবক….

স্বাভাবিক খাবার না খেলেই মানুষ সাধারণত বাঁচে না। তবে এবার ঘটেছে অন্যরকম এক ঘটনা।

বিস্তারিত : 

ভারতের বেঙ্গালুরুর এক যুবক কিন্তু এই অদ্ভুত দাবিই করছেন। তিনি বলছেন, ১৫ বছর ধরে স্রেফ পোড়া ইঞ্জিন অয়েল এবং কাগজের ছাই খেয়ে বেঁচে আছেন তিনি।
ওই ব্যক্তির নাম কুমার। স্থানীয়দের কাছে অয়েল কুমার নামে তিনি পরিচিত। বাড়ি কর্নাটকের শিমোগায়। তার বক্তব্য, তিনি যখন খুব ছোটো, তখন বাবা-মা তাকে বেঙ্গালুরু স্টেশনে ফেলে পালান। এখন কোলার এলাকার শনিশ্বর মন্দিরের কাছে তিনি থাকেন।
কুমার জানিয়েছেন, একটা সময় বেঙ্গালুরুতে কুলির কাজ করতেন তিনি। যার অধীনে তিনি কাজ করতেন, বহুদিন কুমারকে টাকাপয়সা দেননি তিনি। একটা সময় খিদের জ্বালায় পোড়া ইঞ্জিন অয়েল খেতে তিনি বাধ্য হন। সেই শুরু। পরে শুরু করেন কাগজ পোড়ার ছাই খাওয়া। প্রথমে তার শরীরে অদ্ভুত একটা কষ্ট হত বলে জানিয়েছেন কুমার। তবে এখন তা সয়ে গেছে। এখন গোটা দিনে লিটার পাঁচেক পোড়া ইঞ্জিন অয়েল খেয়ে নিতে পারেন কুমার।
বিশেষজ্ঞরা বলছেন, খাবার না খেয়ে একজন মানুষ মোটামুটি সপ্তাহ তিনেক বেঁচে থাকতে পারে। তারপর তার বাঁচা মুশকিল।
কুমার জানিয়েছেন , সবটাই ভগবানের আশীর্বাদ। তার হাত মাথায় না থাকলে এভাবে কিছুতেই বাঁচতে পারতেন না তিনি।

(Visited 30 times, 1 visits today)

Related Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *